১৯৪৬-এর হিন্দু প্রতিরোধের নায়ক গোপাল মুখার্জি স্মরণে রাজ্যব্যাপী সভা হিন্দু সংহতির

১৯৪৬-এর মুসলিম লীগের ডাকে পাকিস্তানের দাবিতে কলকাতায় যে হিন্দু গণহত্যা হয়েছিল, তার প্রতিরোধে সিংহ বিক্রমে এগিয়ে এসেছিলেন শ্রী গোপালচন্দ্র মুখার্জি। তাঁর ভারত জাতীয় বাহিনীর হিন্দু যুবকদের পাল্টা মারে মুসলিম লীগের তখন দিশেহারা অবস্থা। ১৯৪৬-এর হিন্দু প্রতিরোধের নায়ক গোপাল মুখার্জি স্মরণে গতকাল ১৬ই আগস্ট, হিন্দু সংহতির উদ্যোগে রাজ্যজুড়ে একাধিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এই সভাগুলির মাধ্যমে গোপাল মুখার্জিকে স্মরণ করা হয়।

হিন্দু সংহতির উদ্যোগে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার ক্যানিং-এ গোপাল মুখার্জির স্মরণে একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এছাড়া হাওড়া জেলার আমতা, উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বনগাঁ ও পানিহাটি; নদীয়ার হরিণঘাটা; ব্যারাকপুরের সোদপুর, বসিরহাটের হাসনাবাদ; হুগলির মশাটেও সভা অনুষ্ঠিত হয়। উদ্দেশ্য, গ্ৰামে গ্ৰামে গোপাল মুখার্জীর আদর্শে অনুপ্রানিত যুবকদল গঠন করা। হিন্দু সংহতির কেন্দ্রীয় সভাপতি দেবতনু ভট্টাচার্য, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও বুদ্ধিজীবি রন্তিদেব সেনগুপ্ত, হিন্দু সংহতির কেন্দ্রীয় সহঃ সভাপতি, বিশিষ্ট আইনজীবি শান্তনু সিংহ সহ হিন্দু সংহতির বিভিন্ন স্তরের নেতৃত্ব সভাগুলিতে তৎকালীন পরিস্থিতি ও গোপাল মুখার্জীর ভূমিকার বিস্তারিত ব্যাখ্যা উপস্থাপিত করেন। সর্বত্র পরিপূর্ণ উৎসাহ নিয়ে যোগদানকারী যুবকদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ পরিষ্কার জানান দিচ্ছে , তারা মানসিকভাবে প্রস্তুত। গোপাল মুখার্জীর ভাষায় জেহাদিদের জবাব দিতে তারা তৈরী। সমাজ আশার আলো দেখছে। গোপাল মুখার্জী নবরূপে ফিরে আসছেন হিন্দু সংহতির কার্যকর্তাদের কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s