রোহিঙ্গা মুসলিমরা দেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বিপদ, জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিলো হিন্দু সংহতি

স্থানীয় মুসলিম ধর্মীয় সংগঠন এবং ইসলামিক এনজিও-দের সহযোগিতায় মায়ানমার থেকে রোহিঙ্গা মুসলিমদের নিয়ে এসে স্থায়ীভাবে বসতি স্থাপন করছে পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলায়। তার মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলায় বিগত কয়েকমাস ধরেই রোহিঙ্গা মুসলিমদের আনাগোনা বাড়ছে। আর এই রোহিঙ্গা মুসলিমদের অনুপ্রবেশ যে বাঙালি হিন্দু এবং দেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বড়ো  বিপদ, তা জানিয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে   চিঠি দিলেন হিন্দু সংহতির সর্বভারতীয় সভাপতি শ্রী দেবতনু ভট্টাচার্য মহাশয়। তিনি তার চিঠিতে উল্লেখ করেছেন যে বাঙালি হিন্দু একবার দেশভাগের শিকার হয়েছে; বেআইনি মুসলিম অনুপ্রবেশের ফলে তাকে যেন আবার উদ্বাস্তু না হতে হয়। তিনি রোহিঙ্গাদের প্রসঙ্গে চিঠিতে উল্লেখ করেছেন যে, বাংলাদেশ একটি মুসলিম দেশ হওয়া সত্বেও তারা রোহিঙ্গাদেরকে স্থায়ীভাবে আশ্রয় দিতে রাজি নয়। তাছাড়া রোহিঙ্গাদের নিজস্ব জঙ্গি সংগঠন রোহিঙ্গা সলভেসন আর্মি রয়েছে, যা মায়ানমারে হিন্দু এবং বৌদ্ধ গণহত্যায় জড়িত। অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গা মুসলিমদের মধ্যে জিহাদিরাও ঢুকে পড়তে পারে। তা দেশের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বিপজ্জনক।  এই চিঠিতে এই রোহিঙ্গা মুসলিম অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে করা পদক্ষেপ নেবার দাবি জানিয়েছেন শ্রী দেবতনু ভট্টাচার্য মহাশয়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s