ভারতে মুসলিম জনসংখ্যা সবথেকে বেশি বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

২০০১ সাল থেকে ২০১১ পর্যন্ত ভারতে মুসলিম সম্প্রদায়ের জনসংখ্যার বৃদ্ধি পেয়েছে ২৪ শতাংশ হারে। যদিও বিগত দশকের চেয়ে মুসলিম বৃদ্ধির হার কিছুটা কম। ১৯৯১ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত ভারতে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ছিল ২৯ শতাংশ। ইকনমিক টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০১১ সালের জনগণনা অনুযায়ী বিগত দশ বছরে ভারতে হিন্দু জনসংখ্যার তুলনায় মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধিতে এগিয়ে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদ, মালদা ও উত্তর দিনাজপুরে হিন্দু জনসংখ্যার থেকে ছাপিয়ে গিয়েছে মুসলিম জনসংখ্যা। মুর্শিদাবাদে মুসলিম জনসংখ্যা ৪৭ লক্ষ, হিন্দু ২৩ লক্ষ। মালদায় ২০ লক্ষ মুসলিম, হিন্দু ১৯ লক্ষ। উত্তর দিনাজপুরে ১৫ লক্ষ মুসলিম, ১৪ লক্ষ হিন্দু।

সমীক্ষায় দেখা গেছে, ভারতে হিন্দু জনসংখ্যা যদি ০.৭ শতাংশ কমে, বাংলায় কমেছে ১.৯৪ শতাংশ। ঠিক তেমনই মুসলিম জনসংখ্যা ভারতে ০.৮ শতাংশ বেড়েছে কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বেড়েছে ১.৭৭ শতাংশ। পশ্চিমবঙ্গে মোট জনসংখ্যা ৯ কোটি ১২ লক্ষ। ধর্ম ভিত্তিতে হিন্দু রয়েছে ৬ কোটি ৪ লক্ষ। মোট জনসংখ্যার ৭০.৫৩ শতাংশ হিন্দু রয়েছে। মুসলিম জনসংখ্যা ২ কোটি ৪ লক্ষ। ২৭.০১ শতাংশ রয়েছে মুসলিম সম্প্রদায়।

আদমশুমারী অনুযায়ী, জম্মু-কাশ্মীরে বসবাসকারী মুসলিম মানুষের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। মোট জনসংখ্যার ৬৮.৩ শতাংশ মুসলিম। এরপরেই আছে অাসাম, সেখানে ৩৪.২ এবং ২৭.০১ শতাংশ মুসলিম বসবাস করে পশ্চিমবঙ্গে। মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে উত্তরাখন্ড, কেরল, গোয়াতেও। উত্তরাখন্ডে এই বৃদ্ধির হার ১১.৯ থেকে ১৩.৯ শতাংশ। কেরলে ২৪.৭ থেকে বেড়ে ২৬.৬। গোয়াতে এই বৃদ্ধির হার ৬.৮ থেকে ৮.৪ শতাংশ। হরিয়ানা ৫.৮ থেকে ৭ শতাংশ। রাজধানী দিল্লিতে ১১.৭ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২.৯ শতাংশে। অন্যদিকে মুসলিম জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমেছে মণিপুরে। উত্তরপূর্ব ভারতের এই রাজ্যে বিগত আদমশুমারী অনুযায়ী (২০০১ সালে) যেখানে ৮.৮ শতাংশ ছিল সেখানে সর্বশেষ আদমশুমারী অনুযায়ী (২০১১) এই বৃদ্ধির হার কমে দাঁড়িয়েছে ৮.৪ শতাংশ।

২০০১ জনগণনা – পশ্চিমবঙ্গের মোট জনসংখ্যা – ৮,০১,৭৬,১৯৭ জন, হিন্দু জনসংখ্যা – ৫,৮১,০৪,৮৩৫ জন (পুরুষ – ৩,০০,৬৯,৫০৩ জন ও মহিলা – ২,৮০,৩৫,৩৩২ জন), মুসলিম জনসংখ্যা – ২,০২,৪০,৫৪৩ জন (পুরুষ- ১,০৪,৭০,৪০৬ জন ও মহিলা- ৯৭,৭০,১৩৭ জন)।

২০১১ জনগণনা – পশ্চিমবঙ্গের মোট জনসংখ্যা – ৯,১২,৭৬, ১১৫ জন, হিন্দু জনসংখ্যা – ৬,৪৩,৮৫,৫৪৬ জন (পুরুষ – ৩,৩০,৪৬,৫৫৭ ও মহিলা – ৩,১৩,৩৮,৯৮৯ জন), মুসলিম জনসংখ্যা – ২,৪৬,৫৪,৮২৫ জন (পুরুষ – ১,২৬,৪০,০৯২ ও মহিলা – ১,২০,১৪,৭৩৩ জন)।

২০০৯-এ পরিচালিত এক গবেষণায় দেখা গেছে, বিশ্বে মোট জনসংখ্যার প্রায় চার ভাগের এক ভাগ মুসলমান। এ গবেষণা অনুযায়ী বর্তমানে পৃথিবীর জনসংখ্যা প্রায় ৬৮০ কোটি যার মধ্যে মুসলমানদের সংখ্যা প্রায় ১৫৭ কোটি, অর্থাৎ বর্তমান বিশ্বে মোট জনসংখ্যার প্রায় ২৩ শতাংশ মুসলমান। আর মুসলমানদের মধ্যে প্রায় ২০ শতাংশ এশিয়া মহাদেশে বসবাস করে। ইন্দোনেশিয়ায় প্রায় ২০ কোটি ৩০ লাখ মুসলমান বাস করে যা বিশ্বে মোট মুসলমান জনসংখ্যার প্রায় ১৩%। পাকিস্তানে ১৭ কোটি ৪০ লাখ, ভারতে ১৭ কোটি ৭২ লাখ, বাংলাদেশে ১৪ কোটি ৫০ লাখ, এবং ইরান ও তুরস্কে ৭ কোটি ৪০ লাখ মুসলিম বসবাস করে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s