মসজিদের আযান নিষিদ্ধ হলো জার্মানিতে

এক খ্রিষ্টান দম্পতির অভিযোগের মুখে মসজিদে আজান নিষিদ্ধ করলো পশ্চিম জার্মানির ডর্টমন্ডের ওয়েরআরকেনসউইক শহর। ওই খ্রিষ্টান দম্পতি জানায়, এক কিলোমিটার দূর থেকেও তারা আজানের ধ্বনি শুনতে পায় যা তাদের ধর্মীয় স্বাধীনতা লঙ্ঘন করে। আদালত আরো জানায়, ২০১৩ সালে তুর্কি মুসলিম সম্প্রদায়কে আজান দেওয়ার যে নিয়ম বেঁধে দেওয়া হয়েছিল তা ঠিকভাবে অনুসরণ করা হয় নি। যদিও মসজিদ কর্তৃপক্ষ চাইলে পুনরায় তাদের যুক্তি দেখিয়ে আবেদন করতে পারবে।

হানস জোসেন ল্যামেন (৬৯) গণমাধ্যমকে বলেন, এই ধরণের শব্দ আমাদের জন্য বিরক্তিকর। একজন খ্রিষ্টান হিসেবে আমরা এটি মানতে পারি না। আদালতে তাদের আইনজীবি বলেন, ‘‘আযানের শব্দকে চার্চের ঘণ্টার সঙ্গে তুলনা করা যায় না। ঘণ্টা স্বল্প সময়ের জন্য প্রতিধ্বনিত হয়। কিন্তু আযানে দুই মিনিটের জন্য প্রার্থনা করার আহ্বান করা হয়।’’

অন্যদিকে মসজিদ কর্তৃপক্ষ হুসাইন তারগাত বলেন, ‘‘আমাদের সাথে অনেক জার্মান প্রতিবেশি আছে। ১০ মিটার দূরত্বে যারা থাকে তাদের কাছ থেকেও আমরা কখনো কোন অভিযোগ শুনিনি।’’ প্রসঙ্গত, ২০১৫ সাল থেকে সিরিয়া, ইরাকসহ অন্যান্য মুসলিম দেশগুলো থেকে জার্মানিতে শরণার্থী আসার পর থেকে দেশটিতে ইসলাম-বিরোধী মনোভাব তীব্র আকার ধারণ করে।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s