মহাভারতের ‘জতুগৃহ’ খুঁজতে খননে নামলো এএসআই

Mahabharoter Lakkhsgriho khujteপশ্চিম উত্তরপ্রদেশের বাগপত জেলার বারনাওয়া গ্রামে সত্যিই কি মহাভারত যুগের গুহা ও ধ্বংসাবশেষ রয়েছে? স্থানীয় বাসিন্দা এবং ঐতিহাসিকরা অন্তত তেমনটাই দাবি করে আসছেন দীর্ঘ দিন ধরে। বারনাওয়া গ্রাম, যার প্রাচীন নাম ছিল বারনাব্রত। স্থানীয় বাসিন্দা এবং ঐতিহাসিকদের দাবি, ওই গ্রামে যে গুহা উদ্ধার হয়েছে কৌরবদের হাত থেকে রক্ষা পেতে সেই গুহা দিয়ে পালিয়ে প্রাণ বাঁচিয়েছিলেন পাণ্ডবরা। শুধু তাই নয়, একটা বিশালাকায় ঢিবি উদ্ধার হয়েছে। সেই ঢিবিটাই  একটা বাড়ি ছিল। যা কৌরবরা তৈরি করেছিলেন পান্ডবদের জন্য। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি মহাভারতে উল্লিখিত ‘জতুগৃহ’ এটাই। মোদীনগরের মুলতানি মাল পিজি কলেজের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক কৃষ্ণকান্ত শর্মারও দাবি, বারনাওয়াতে যে ঢিবি পাওয়া গিয়েছে সেটি কৌরবদের তৈরি ‘জতুগৃহ’। তাঁরা পাণ্ডবদের থাকার জন্য এটি তৈরি করেছিলেন। এখানেই পান্ডবদের হত্যা করার ষড়যন্ত্র করেছিলেন তাঁরা। বহু পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর অবশেষে বাগপতে খননকার্য চালানোর চূড়ান্ত প্রস্তুতি নিয়ে ফেলল ভারতীয় পুরাতত্ত্ব সর্বেক্ষণ(এএসআই)। যৌথ ভাবে এই খননকার্য চালাবে এএসআই এবং দিল্লির ইনস্টিটিউট অব আর্কেওলজি। খননকার্য চালানোর জন্য একটি দল ইতিমধ্যেই বারনাওয়া গ্রামে পৌঁছে কাজ শুরু করে দিয়েছে। বাগপতের সঙ্গে মহাভারতের সেই ঘটনার কোনও যোগ আছে কি না, বা স্থানীয় বাসিন্দা, ঐতিহাসিকদের দাবি সত্যি কি না তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চায়নি এএসআই। শুধু তাই নয়, এর ধর্মীয় গুরুত্ব সম্পর্কেও কিছু বলতে চায়নি তারা। ইনস্টিটিউট অব আর্কেওলজির ডিরেক্টর এস কে মঞ্জুল বলেন, “সবে কাজ শুরু হয়েছে। এখনই স্থানটির ধর্মীয় গুরুত্ব সম্পর্কে কোনও মন্তব্য করা ঠিক হবে না।” বাগপতের আশপাশে এর আগেও বহু ঐতিহাসিক জিনিসপত্র খুঁজে পেয়েছেন পুরাতত্ত্ববিদরা। তবে বারনাওয়া গ্রামের এই ধ্বংসাবশেষের সঙ্গে মহাভারত যুগের কোনও যোগ আছে কি না সেটাই এখন দেখার বিষয়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s