বর্তমানে রাজ্যের সব কসাইখানা বন্ধ

ক্ষমতায় এসেই উত্তর প্রদেশের ‘বেআইনি’ কসাইখানা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল যোগী আদিত্যনাথ সরকার৷ পরে গবাদি পশু বিক্রি এবং কাটার উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করে কেন্দ্রের নরেন্দ্র মোদী সরকারও৷ কেন্দ্রের ওই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করে এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, মানা হবে না ওই সিদ্ধান্ত৷ এ নিয়ে রাজনৈতিক তরজা চললেও বাস্তবতা হচ্ছে, গত আট-ন ’মাস ধরে বন্ধ রন্তানির অনুমোদনপ্রান্ত রাজ্যের একমাত্র কসাইখানাটি৷ কলকাতার ট্যাংরার আধুনিক কসাইখানাটি বন্ধ রয়েছে গত ১ এপ্রিল থেকে৷ পরিবেশ দূষণের কারণে বছর কয়েক আগেই মৌড়িগ্রামে বড় একটি স্লটার হাউস বন্ধের নির্দেশ দিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ৷ সেই প্রক্রিয়াকরণ ইউনিটটি থেকেও রন্তানি হত মোষের মাংস৷ এখন ট্যাংরার স্লটার হাউসটি বন্ধ। জানা গিয়েছে, ট্যাংরার ইউনিটটি তৈরি হয়েছিল সম্পূর্ণ ভাবে মোষের প্রসেসড মাংস রন্তানির উদ্দেশ্যেই৷ দিনে সেখানে ছশো মোষ কাটার এবং প্রসেসিংয়ের আধুনিক ব্যবস্থা রয়েছে৷ যুক্ত ছিলেন কয়েকশো মানুষ৷ তা থেকে মাসে সরকারেরও আয় হত ৮ থেকে ৯ লাখ টাকা৷ কলকাতা পুরসভার স্বাস্থ্য দপ্তরের আওতাতেই রয়েছে ওই স্লটার হাউস।  স্লটার চালু করতে উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন সরকারের মন্ত্রী রেজ্জাক মোল্লা।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s