জীবনতলায় হিন্দু সংহতির কর্মীকে লক্ষ্য করে গুলি মুসলিম দুষ্কৃতীদের,পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার না করায় বাড়ছে ক্ষোভ

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার অন্তর্গত ক্যানিং মহকুমার জীবনতলা থানা। এলাকাটি সাম্প্রদায়িক উত্তেজনাপ্রবন মুসলিম দুষ্কৃতীদের সৌজন্যে। এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে হিন্দুরা মুসলিমদের হাতে নানাভাবে অত্যাচারিত এবং অপমানিত। কিন্তু বিগত কয়েকবছর ধরে এলাকায় হিন্দু সংহতির ছায়ার তলায় হিন্দুরা সম্মানের সঙ্গে বাঁচার প্রেরণা পেয়েছে। আর তাকেই দমন করতে এবার হিন্দু সংহতির কর্মীকে লক্ষ্য করে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটলো। গত ২২শে ডিসেম্বর, জীবনতলা থানার অন্তর্গত গাববুনিয়া গ্রামের বাসিন্দা হিন্দু সংহতির কর্মী শ্যামল নস্কর এবং সুশান্ত অধিকারী গ্রামের একজনের বাড়িতে রামায়ণ গান দেখে ফিরছিলো। প্রায় রাত ৯টার সময় তাদের লক্ষ্য করে মুসলিম দুষ্কৃতীরা কয়েক রাউন্ড গুলি চালায়।শ্যামল নস্করের বুকে ও পেটে গুলি লাগে। সুশান্ত অধিকারীর পায়ে গুলি লাগে। প্রথমে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে সেখান থেকে তাদের চিত্তরঞ্জন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তাদের পিজি-তে রেফার করা হয়। বর্তমানে তাদের পিজি হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে। শ্যামল নস্কর দুষ্কৃতীদের চিনে ফেলেন এবং পুলিশের কাছে করা অভিযোগে তার দাদা সমীর নস্কর দুষ্কৃতীদের শনাক্ত করেছেন। দুষ্কৃতীরা হলো রাজু মোল্লা(পিতা – মৃত হাসেম), রাজু মল্লিক(পিতা – অজেত), শাজাহান গাজী(পিতা – মৃত আরজেদ), আব্দুল রাজ্জাক(পিতা -আবুরালী শেখ), মোজাম্মেল শেখ(পিতা – দুর্লভ), আনছার গাজী(পিতা – মৃত-আরজেদ), সাইফুদ্দিন গাজী, এসরালী শেখ এবং রহিম মোল্লা। তবে পুলিশ দুষ্কৃতীদের একজনকেও গ্রেপ্তার না করায় এলাকার মানুষ যথেষ্ট ক্ষুব্ধ এবং তারা গতকাল ২৩শে ডিসেম্বর বাসন্তী হাইওয়ে অবরোধ করে। পরে পুলিশ এসে ২৪ ঘন্টার মধ্যে দুষ্কৃতীদের গ্রেপ্তার করার আশ্বাস দিলে অবরোধ উঠে যায়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s